কিশোরগঞ্জে যুবলীগ নেতা ইউসুফ মনি হত্যায় জড়িতেদের বিচারের দাবিতে মানববন্ধন

0
46

সর্বশেষ আপডেট 2 years আগে | নিউজ ভিশন ২৪

নিজস্ব সংবাদদাতা: কিশোরগঞ্জে যুবলীগ নেতা ইউনুফ মনি হত্যার বিচারের দাবিতে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) দুপুরে শহরের আখড়াবাজার এলাকায় এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

চাঞ্চল্যকর যুবলীগ নেতা ইউসুফ মনি হত্যার দেড় বছর পেড়িয়ে গেলেও মামলার মূল আসামিরা গ্রেপ্তার না হওয়ায় ক্ষোভ জানিয়েছেন এলাকাবাসী। দ্রুত মূল আসামি নয়ন, নিয়াজ, রাজিব, সানা ও মোবারকসহ বাকি আসামিদের গ্রেপ্তার করে বিচারের মুখোমুখি করার দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

ঘন্টাব্যাপী অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে কিশোরগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মাহমুদ পারভেজ, নিহত যুবলীগ নেতার ছোট ভাই কিশোরগঞ্জ পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ইয়াকুব সুমন ও যুবলীগ নেতা পল্লব করসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ বক্তব্য রাখেন। এ সময় বক্তারা জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে আএনর আওতায় আনার জোর দাবি জানান। পরে মানববন্ধন শেষে মানববন্ধনে অংমগ্রহণকারীরিেজেলা প্রমাসক বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেন।

উল্লেখ্য ২০১৯ সালের ২৫ জানুয়ারি রাতে কিশোরগঞ্জ শহরের রথখলা এলাকায় সন্ত্রাসীরা যুবলীগ নেতা ইউসুফ মনিকে নৃশংসভাবে কুপিয়ে জখম করে। পরে চিকিৎসার জন্য ময়মনসিয়হ মেডিকলে কলেজ নিয়ে যাওয়ার পথে ইউসুফ মনি মারা যান। ঘটনার সময় মনির ছোট ভাই কাউন্সিলর ইয়াকুব সমুনকেও কুপিয়ে জখম করা হয়।

পরে ঘটনায় নিহত যুবলীগ নেতার স্ত্রী আবেদা আক্তার শিখা বাদী হয়ে ১২জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা সন্ত্রাসীদের আসামি করে করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পুলিশ বিভিন্ন সময় অভিযান চালিয়ে ২১জন আসামিকে গ্রেপ্তার করলেও মূল আসামিদের গ্রেপ্তার করতে পারেনি বলে অভিযোগ করেন নিহতের পরিবার। দেড় বছরেও মূল আসামিরা গ্রেপ্তার না হওয়ায় নিহতের পরিবারে মাঝে তাদের ন্যায় বিচার না পাওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

এ বিষয়ে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কিশোরগঞ্জ মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মিজানুর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘ইউসুফ মনি হত্যা মামলায় পুলিশের কোনো গাফিলতি নেই। মামলায় ১২জনকে আসামি করা হলেও পুলিশ তদন্তে আরো অনেকের সম্পৃক্ততা পায়। এ পর্যন্ত মোট ২১জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

সম্প্রতি এ মামলায় ৩২জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেওয়া হয়েছে। এখন আদালত থেকে পলাতকদের ধরতে ওয়ারেন্ট বের হবে। এর পর পুলিশ তাদের গ্রেপ্তারে অভিযান চালাবে।’

মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন
এখানে আপনার নাম লিখুন