মরার আগে যদি একটা রাইত নিজের বাড়িতে ঘুমাইতে পারতাম

0
41

সর্বশেষ আপডেট 2 years আগে | Nazrul Sagar

সিয়াম শাহরিয়ার, নিজস্ব প্রতিনিধি: নিজের বাড়ি ঘর নাই, জন্মের পর থাইক্কা পরের বাড়িতে থাকি, মরার আগে যদি একটা রাইত নিজের বাড়িতে ঘুমাইতে পারতাম তবে মইরাও সুখ পাইতাম। আজ সোমবার অষ্টগ্রাম উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি নজরুল ইসলাম সাগর, সহ সভাপতি অজিত দত্ত, সম্পাদক তোফায়েল আহমদ তুষার ও সাংগঠনিক সম্পাদক খন্দকার আবু সুফিয়ান তাকে দেখতে গেলে তাদের কাছে অনেক কষ্ঠে কথাগুলো বল্লেন ”হানটিংটন্স কোরিয়া” নামের বিরল রোগে আক্রান্ত শওকত মিয়া।

শওকত মিয়া (৬৩) কিশোরগঞ্জের হাওর উপজেলা অষ্টগ্রামের কাস্তুল ইউনিয়নের শান্তিনগর গ্রামের সাদেক মিয়ার বাড়িতে জরাজীর্ণ ঘরে থাকেন।
তিনি আরও বলেন, আমার কোন পোলা মাইয়া নাই, নিজে রোজগার করতে পারিনা। পনের বছর যাবৎ বিনা চিকিৎসায় অসুখে ভূগতেছি। আমি ও আমার স্ত্রী আম্বিয়া খেয়ে না খেয়ে অনেক কষ্টে দিন কাটাইতেছি। আমাদের কেউ দেখেনা, আমাদের কথাও কেউ শুনেনা। শুনতাছি শেখ সাবের মাইয়া আমাদের প্রধানমন্ত্রী গরীবের মা বাপ। তিনি অসহায় মানুষেরে ঘর-বাড়ি দিতাছেন। আপনারা যদি আমার দুঃখের কথাগুলি তাঁর কাছে পৌঁছাইবার ব্যবস্থা করতেন তাইলে শেষ বয়েসে একখান মাথা গোঁজার ঠাঁই পাইয়া মইরাও সুখ পাইতাম।

এ বিষয়ে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আলমাছ উদ্দিনের সাথে বথা হলে, তিনি তার (শওকত) বাড়িতে এসে কম্বল উপহার দিয়ে আশ্বস্ত করে বলেন, আমি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সাথে কথা বলে দেখি, সম্ভব হলে আপনার মনের আকুতি পূরণ করতে যথাসাধ্য চেষ্টা করব।

মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন
এখানে আপনার নাম লিখুন