শুভ জন্মদিন হাওরের আলোর দিশারী

0
205

সর্বশেষ আপডেট 2 years আগে | নিউজ ভিশন ২৪

শুভ জন্মদিন অবহেলিত হাওরের মানুষের জীবন-যাত্রার মান উন্নয়ন করার লক্ষ্যে দিন-রাত কাজ করে যাওয়া ক্লান্তিহীন মহান এক মানুষ, যার রক্তে মিশে আছে হাওড়বাসীর উন্নয়ন করার চিন্তা-চেতনা। গরীব-দুঃখী ও অসহায় মানুষের সেবায় যার ভূমিকা প্রশংসনীয়। তিনি হলেন কিশোরগঞ্জ-৪ আসনের মাননীয় সংসদ জননেতা রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক। যার শরীরে মিশে আছে হাওড় পিতা মহামান্য রাষ্ট্রপতি জনাব মোঃ আব্দুল হামিদ মহোদয়ের রক্ত।

সংসদীয় আসনের জনমানুষের কাছে রেজওয়ান আহমেদ তৌফিক মানেই সহজ-সরল মনের অনন্য এক মানবতার প্রতীক। দীর্ঘ দিন যাবত যিনি হাওরের এই জনগনদের নিয়ে সকল বাধা বিপত্তির অথই নদীকে উপেক্ষা করে উন্নয়নের নৌকার মাঝি হয়ে জয় বাংলার নৌকায় করে ইটনা, মিঠামইন, অষ্টগ্রামকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন উন্নয়ন, শিক্ষা, শান্তি এবং স্বপ্নের ঠিকানায়। যে স্বপ্ন এক সময় ভাঁটির মানুষদের কাছে শুধুমাত্র রঙ্গিন কল্পনা মনে হত সেই স্বপ্ন আজ বাস্তবায়ন হয়েছে। স্বপ্নবাজ নৌকার মাঝির নৌকায় চড়ে আমরা দ্রুত গতিতে এগিয়ে যাচ্ছি উন্নয়নের মহাসড়কে।
মানবতার এই ফেরিওয়ালা কখনো ছুটে যাচ্ছেন বিপন্ন মানুষের পাশে তাদের সাহায্য করতে, কখনো ছুটে যাচ্ছেন হতদরিদ্রের মাঝে, কখনো পাশে দাঁড়াচ্ছেন দুরারোগ্য অসুখে আক্রান্ত মানুষের পাশে, কখনোবা ছুটে যাচ্ছেন ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকল অনুষ্ঠান ও মসজিদ-মন্দিরের খবর নিতে। তার সকল ব্যস্ততা যেন তিন উপজেলার মানুষকে ঘিরে। বছরের প্রায় পুরোটা সময় তিনি থাকেন তিন উপজেলার মানুষের পাশে।

তাঁর সহজ-সরল চলাফেরা জনগনের কাছে তাকে সহজ-সরল মানুষ হিসেবে পরিচিত করেছে। সবসময় এলাকায় থেকে হাওরবাসীর আপদ-বিপদে থাকার সর্বোচ্চ চেষ্ঠায় তিনি হাওরবাসীর পাশে দাঁড়াতে পুরোপুরি সফল একজন জননেতা।

তিন উপজেলার মানুষ এই মহান মানুষটাকে নিয়ে গর্বিত কেননা তার অবদানের জন্যেই আজ কিশোরগঞ্জ-৪ (অষ্টগ্রাম, ইটনা, মিঠামইন) সারা বাংলার বিস্ময়। অষ্টগ্রাম, ইটনা, মিঠামইন নাম শুনতেই আপনার চোখের সামনে ভেসে উঠা হাওড়ের বুক চিরে আঁকাবাঁকা পিচডালা দৃষ্টিনন্দন সড়ক, যে সড়ক এক হাওড়কে যোগ করেছে আরেক হাওড়ের সাথে। এটিও জনেতা রেজয়ান আহাম্মদ তৌফিকের দৃশ্যমান উন্নয়নগুলোর একটি মাত্র। অষ্টগ্রাম, মিঠামইন, ইটনা উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন ঘুরে ঘুরে দেখে জননেতা রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিকের দৃশ্যমান উন্নয়ন গুনে শেষ করাটা বেশ কষ্টসাধ্য। তাইতো কিশোরগঞ্জ-৪ আসন (অষ্টগ্রাম, মিঠামইন, ইটনা) বাংলাদেশের বুকে আজ উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে প্রশংসিত এবং পরিচিত।

এই আসনটিতে এমন হাজারো জনগন রয়েছেন যারা কোন রাজনীতি বুঝেন না, তারা শুধু বুঝেন তাদের বিপদের কান্ডারী ‘তৌফিক’ নামের সহজ-সরল মানুষটিকে। তিনি মানুষের কল্যাণের অনুসারী, মানুষ তাঁর এই আদর্শের অনুসারী। তিনি এমনই একজন ব্যক্তিত্ব যার বিবরণ লিখে শেষ করা যাবে না।

যার মুখের ভাষায় আছে পরিপূর্ণ নিজে এলাকার ছাপ ও মাধুরীকতা। তার চোখে আছে সুন্দর ও সচল এবং আধুনিক অষ্টগ্রাম-ইটনা-মিটামইন গড়ার স্বপ্ন। যার হৃদয়ে আছে মাদক মুক্ত, অন্যায় ও অবিচার মুক্ত সমাজ গড়ার দৃঢ় প্রত্যয়। তিনি জনগনের আশা ও স্বপ্নের একজন জননেতা।

এমন একজন আদর্শবান জননেতার জন্মদিনে জানাই শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা। আপনি ভালো থাকবেন সর্বদা ভাটির মা মাটি ও মানুষের দোয়ায়।

লেখক: বিল্লাল হোসেন রামিন, অষ্টগ্রাম উপজেলা ছাত্রলীগ কর্মী।

মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন
এখানে আপনার নাম লিখুন